২০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং, মঙ্গলবার, ৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শ্রীলংকা সফরের আগে ম্যাকেঞ্জির পদত্যাগ

দৈনিক বিদ্যালয় | লুকমান তালুকদার |

আগামী মাসেই শ্রীলংকা সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। আর ঠিক তার পূর্বমুহূর্তে কিছুটা বিপাকে পড়তে হচ্ছে তামিম-মুশফিকদের। কেননা বৃহস্পতিবার (২০ আগস্ট) বাংলাদেশ জাতীয় দলের ব্যাটিং কোচের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন নিল ম্যাকেঞ্জি।

এক প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে, পারিবারিক কারণ দেখিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরির কাছে পদত্যাগ পত্র জমা দিয়েছেন ম্যাকেঞ্জি। বিসিবির এক কর্মকর্তা এমন সংবাদ প্রকাশ করেছে।

আসন্ন লঙ্কা সফরে বাংলাদেশের টেস্ট দলের ব্যাটসম্যানদের কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেবার কথা ছিল ম্যাকেঞ্জির। সেই মোতাবেক পরিকল্পনাও করে ফেলেছিল বিসিবি ইতোমধ্যেই। শ্রীলংকা সফরে প্রস্তুতি ক্যাম্পে এই দক্ষিণ আফ্রিকান কোচকে চেয়েছিল বিসিবি।

কিন্তু করোনার প্রভাবে পরিবার ছেড়ে আসা সম্ভব হচ্ছে না এই ব্যাটিং কোচের। প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে, পরিবারকে সময় দিতে বিসিবির চাকরিটিই ছেড়ে দিলেন তিনি।

এর আগে বিসিবির পরিচালক আকরাম খানের ম্যাকেঞ্জির শ্রীলংকা সফরে যাওয়া প্রসঙ্গে বলেছিলেন, ‘ম্যাকেঞ্জির এই সিরিজে যাওয়ার কথা ছিল। তার সঙ্গে আমাদের কথা বলতে হবে। দুই তিন দিনের ভেতরই বলতে হবে। সে যদি এই সফরে না যায় তাহলে এক রকম, আর বাংলাদেশের সঙ্গে না থাকলে সেটা অন্য রকম। এক্ষেত্রে আমরা বিকল্প ব্যাটিং কোচ নিয়োগ দেব।’

‘আমরা জানি ক্রেইগ ম্যাকমিলান এই মুহূর্তে কিছু করছেন না। সবকিছু পরিষ্কার হলে তার সঙ্গে আলোচনা হবে।’

২০১৮ সালের ২০ জুলাই বিসিবি তামিম-লিটন-মাহমুদউল্লাহদের সাদা বলের ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগ পান নিল ম্যাকেঞ্জি। গ্যারি কারস্টেনের সুপারিশে নিয়োগ পেয়ে জাতীয় দলের সাবেক কোচ স্টুয়ার্ট রোদসের সঙ্গে মিলে দুর্দান্ত কাজ করেছিলেন ম্যাকেঞ্জি।

প্রাথমিক অবস্থায় তার সঙ্গে ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত চুক্তি করেছিল বিসিবি। কিন্তু ক্রিকেটারদের থেকে ভালো প্রতিক্রিয়া পাওয়ায় সেই চুক্তি দুই বছরের জন্য নবায়ন করে বাংলাদেশের ক্রিকেটের অভিভাবক এই সংস্থাটি। কিন্তু সেই চুক্তি শেষ হবার আগেই চাকরি ছেড়ে দিলেন এই প্রোটিয়া কোচ।

এছাড়া আকরাম খান আরো বলেন, বাংলাদেশ ক্রিকেট দল তাদের আসন্ন শ্রীলঙ্কা সফরে তাদের সমর্থক কর্মীদের দু’জন মূল সদস্য, ব্যাটিং কোচ নীল ম্যাকেনজি এবং ভিডিও বিশ্লেষক শ্রীনিবাস চন্দ্রশেকরনকে মিস করতে পারে বলে জানিয়েছেন।
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ক্রিকেট অপারেশন কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম বলেছিলেন যে ম্যাকেনজি আনুষ্ঠানিকভাবে এই সফরের জন্য তাঁর অপ্রাপ্যতা নিশ্চিত করতে না পারলেও তিনি মৌখিকভাবে নিজের অনাগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন।
‘তিনি [ম্যাকেনজি] আনুষ্ঠানিকভাবে আমাদের অবহিত করেননি, তবে ব্যক্তিগত আলোচনায় তিনি বলেছিলেন যে তিনি শ্রীলঙ্কা সফরে যোগ দিতে পারবেন না,’ বলেছেন বাংলাদেশের সাবেক এই অধিনায়ক।

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন ওপেনার ম্যাকেনজি প্রথমে সীমিত ওভারের ব্যাটিং কোচ হিসাবে নিয়োগ পেয়েছিলেন তবে পরে তাকে আরও দীর্ঘ সংস্করণের দায়িত্বও দেওয়া হয়েছিল।
বিসিবি ইতিমধ্যে ম্যাকেনজির বিকল্প খুঁজতে শুরু করেছে তবে আকরাম কোনও নাম দিতে অস্বীকার করেছেন।

‘যারা আবেদন করেছেন তাদের গোপনীয়তার শর্ত রয়েছে। সুতরাং, আমরা এই মুহুর্তে কোনও নাম প্রকাশ করতে পারি না, ’তিনি বলেছিলেন।
ভিডিও বিশ্লেষক শ্রীনিবাসও শ্রীলঙ্কা সফর মিস করবেন কারণ সিরিজের সময় তিনি আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে কাজ করবেন।
‘শ্রীনিবাসের সাথে আমাদের চুক্তিটি এমন যে, আইপিএল চলাকালীন তাঁকে আমাদের মুক্তি দিতে হয়েছিল, কয়েক বছর ধরে এটি প্রচলিত ছিল।’

আরো পড়ুনঃ লিওনেল মেসির প্রথম জীবনে যা ঘটেছিল

(ডি বি ল ত)

ফেসবুকে লাইক দিন