২১শে অক্টোবর, ২০২০ ইং, বুধবার, ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মাত্র ১০০ টাকায় সারা মাস ইন্টারনেট পাবে শিক্ষার্থীরা

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মাত্র ১০০ টাকায় পুরো মাস ইন্টারনেট পাবেন। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের জন্য অনলাইনে শিক্ষাকার্যক্রম চালু রাখতে মাত্র ১০০ টাকায় পুরো মাস ইন্টারনেট ব্যবহার করার সুযোগ পাবে দেশের সব পাবলিক ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এ ক্ষেত্রে সরকারি মোবাইল অপারেটর টেলিটক এর সিম ব্যবহার করতে হবে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন পরিচালিত বিডিরেন প্লাটফর্ম ব্যবহারকারী দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এই সুবিধা পাবেন বলে জানিয়েছে। 

এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শিক্ষার্থীদের প্রতি মাসে মাত্র ১০০ টাকা রিচার্জেই এই সুবিধা পাওয়া যাবে। এই রিচার্জ করা টাকা তার মূল অ্যাকাউন্টেই জমা হবে। এই টাকা শিক্ষার্থী কথা বলা ও ডাটা ব্যবহারের কাজে ব্যয় করতে পারবে। প্রতিমাসের অব্যবহৃত টাকা পরবর্তী রিচার্জের সাথে যোগ হবে। এ ক্ষেত্রে ১০০ টাকার নিচে রিচার্জ করলে এবং সিমে যদি ন্যূনতম ডাটা না থাকে তবে এই সুবিধা ভোগ করা যাবে না।

এতে বলা হয়, বর্তমানে ৪২টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ও ৬৮টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বিডিরেন প্লাটফর্ম ব্যবহার করে আসছে। ছাত্র-ছাত্রীরা জুম অ্যাপ এর মাধ্যমে অনলাইনে ক্লাসে অংশ নিতে পারবে। এজন্য শিক্ষার্থীদের টেলিটকের নেটওয়ার্কের আওতায় ও থাকতে হবে।

বুধবার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে ইউজিসি বা বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন বাংলাদেশ। গত ২১ জুলাই টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডসহ সব মোবাইল অপারেটরকে পত্র পাঠায় শিক্ষার্থীরা যেন বিনামূল্যে অনলাইন এডুকেশন রিসোর্স ব্যবহার করতে পারে সে লক্ষ্যে। 

বিডিরেনের এ আহ্বানে সাড়া দিয়ে টেলিটক গত ২৮ আগস্ট ২০২০ একটি সম্মতিপত্র দিয়েছে। টেলিটক মনে করে এই উদ্যোগের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের বিশাল একটি অংশ অনলাইন ক্লাসের সময় তাদের নেটওয়ার্ক ‘টেলিটকে’র আওতায় আসবে।

এ প্রসঙ্গে ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ বলেন, ‘করোনা মহামারীর সময়ে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম চলমান রাখার এ উদ্যোগ অত্যন্ত সময় উপযোগী।’ এই নামমাত্র মূল্য মাত্র ১০০ টাকায় ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথ দেওয়ার উদ্যোগে সাড়া দেওয়ায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ।

আরো পড়ুন: জেনারেল শিক্ষিতরা কেন মাদ্রাসার লাইব্রেরিয়ান পদে আসতে পারবে না এই মর্মে রিট

শিক্ষকদের টাইমস্কেল জটিলতা নিরসনের দুটি পথ

শিক্ষা বিষয়ক সকল খবর পেতে ‘দৈনিক বিদ্যালয়’ বিদ্যালয় পত্রিকায় নিয়মিত ফলো করুন।

*দৈনিক বিদ্যালয়* শিক্ষক, ছাত্র, অভিভাবক সহ সর্বোপরি সকল ধরনের বিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল খবর প্রকাশ করে থাকে। যথাঃ বেতনের খবর, টাইম স্কেল, সিলেকশন গ্রেড, ছুটির খবর, নিয়োগ, পরিপত্র, প্রজ্ঞাপন ইত্যাদি।

দৈনিক বিদ্যালয় আপনার লেখা ও নিউজ পাঠাতে এই ঠিকানায় ইমেইল করুনঃ [email protected]

ফেসবুকে লাইক দিন