২৮শে অক্টোবর, ২০২০ ইং, বুধবার, ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

এ বছর কী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলবে : যা বলছে মন্ত্রী, সচিব ও মহা-পরিচালক

ছবিতে বা থেকে : শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি , মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহা পরিচালক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক ও প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আকরাম আল হোসেন

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ না কমায় ইতোমধ্যেই জেএসসি ও এস.এস.সি পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। সাথে সাথে বাতিল করা করা হয়েছে প্রাথমিকের ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা। এছাড়া এইচ.এস.সি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষাও বাতিল করা হয়েছে। ফলে সংক্রমণ পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না খোলার পক্ষেই মত দিয়েছেন শিক্ষা সংশ্লিষ্টজনেরা।

করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে গত ২৮ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এ পর্যন্ত চার দফায় ছুটির মেয়াদ বাড়িয়ে আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত সব ধরনের বিদ্যালয়ে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে শুধুমাত্র হাফেজিয়া মাদ্ররাসা সমুহ ছাড়া। আসন্ন শীতে করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গ শুরুর আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। ফলে খুব দ্রুয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে না বলেই অভিমত সংশ্লিষ্ট সকলের। সংশ্লিষ্টদের মতে, শীত শুরু হয়ে গেলে করোনার তীব্রতা আরও বাড়তে পারে। এমন অবস্থায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত হবে আত্মঘাতী।

এ বিষয়ে, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আকরাম আল হোসেন বলেন, শীতে করোনার প্রকোপ বাড়বে। আর করোনার প্রকোপ বাড়লে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার কোনো সুযোগ থাকবে না। করোনারভাইরাসের কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যায়ের একাডেমিক ক্যালেন্ডার পর্যালোচনা করে আগামী ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত করা হয়েছে। এর ভিতরেও যদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা না যায় তখন অটো প্রমোশন ছাড়া কোনো উপায় নেই।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহা পরিচালক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক বলেন, ‘করোনা সংক্রমণ পুরোপুরি কমে না আসলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সুযোগ নেই।’ তিনি বলেন, শিক্ষার্থীর জীবনের নিরাপত্তা সবার আগে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিরাপদ মনে না হলে বিদ্যালয় খোলার খোলার সুযোগ নেই। তিনি আরও বলেন, চলমান পরিস্থিতি বিবেচনায় শিক্ষার্থীদের টেলিভিশন, অনলাইন সহ বিভিন্ন মাধ্যমের সাহায্যে পাঠদান অব্যাহত থাকবে।

এ বিষয়ে, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এলে, সংক্রমণ বাড়লে তখন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

সর্বপরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে এর দাপট বৃদ্ধির আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। এই অবস্থায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিপক্ষেই মত সংশ্লিষ্ট সকলের। সে হিসেবে এ বছর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা পুরোটাই অনিশ্চিত। তাছাড়া পুরো শীতকালজুড়ে করোনা থাকলে নতুন বছরের শুরুতে ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা যাবে কিনা তা নিয়েও রয়েছে সংশয়।

প্রাথমিকের কারিকুলাম ও সময়ে আসছে বড় ধরনের পরিবর্তন

চার পাঁচজন শিক্ষক একই পদে যেতে চাইলে সফটওয়্যার যাকে মনে করবে অনুমোদন দেবে

সিনিয়রিটি, পদোন্নতি, টাইমস্কেল বাতিল, টাকা ফেরত, মূলবেতন কমল প্রাথমিক শিক্ষকদের

দৈনিক বিদ্যালয় এর নিউজ নিয়মিত পেতে subscribe বাটনে চাপ দিন। google থেকে সরাসরি এই শিক্ষা বিষয়ক পত্রিকার নিউজ পড়তে dainikbidyaloy.com লিখে সার্চ দিন আর আপনার লেখা পাঠাতে হলে [email protected] ইমেইলে সেন্ড করুন।

ফেসবুকে লাইক দিন