২৯শে জুলাই, ২০২১ ইং, বৃহস্পতিবার, ১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

মাদক মামলায় আসামির সাজা মাদকের বিরুদ্ধে প্রচারণা, বৃক্ষ রোপণ, বাবা মায়ের সেবা

সাতক্ষীরার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দ্বিতীয় আদালতের বিচারক 'ইয়াসমিন নাহার'

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় এক বছরের সাজাপ্রাপ্ত হাসান আলী সরদার (২৫) নামক এক আসামীকে কারাগারে না পাঠিয়ে বাড়িতে প্রবেশনে পাঠিয়ে সংশোধনের সুযোগ দিয়েছেন আদালত।

তবে আদালত থেকে তাকে শর্ত দেওয়া হয়েছে ৫টি। যে শর্ত সমুহ তাকে মেনে চলতে হবে।

১০ নভেম্বর, মঙ্গলবার সাতক্ষীরার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দ্বিতীয় আদালতের বিচারক ‘ইয়াসমিন নাহার’ এ আদেশ দেন।

জানাগেছে প্রবেশনের সুযোগপ্রাপ্ত সাজাপ্রাপ্ত আসামি হাসান আলী সরদার সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ভাদড়া নামক গ্রামের মো. রজব আলী সরদারের ছেলে।

ওই মামলায় আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট এ টি এম ফখরুল আলম এবং রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট শামছুল বারী।

আরও পড়ুন: সারাদেশে এসএসসি পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ শুক্রবার

এ বিষয়ে আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট এটিএম ফখরুল আলম জানান, মঙ্গলবার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের এই মামলার রায়ে আসামি হাসান আলী সরদারকে এক বছরের প্রবেশন দেয়া হয়। তবে এ সময়ে আসামিকে পাঁচটি শর্ত মানার জন্য বলেছে আদালত।

যে শর্তসমুহ হলো-

১. আসামিকে কোনো প্রকার মাদক বা নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবন করা যাবে না। ২. খারাপ কোন সঙ্গীর সঙ্গে মেশা যাবে না। ৩. প্রবেশনকালীন সময়ে কমপক্ষে ১০টি বৃক্ষ রোপণ করতে হবে। ৪. পিতা-মাতাকে সেবা করতে হবে। ৫. সপ্তাহে কমপক্ষে একদিন মাদকের বিরুদ্ধে প্রচার-প্রচারণা চালাতে হবে।

উপরোক্ত শর্তগুলো ভঙ্গ করলে তাকে আবারও কারাগারে যেতে হবে বলে আদেশ বলা হয়েছে। অন্যদিকে বলা হয়েছে, আসামী হাসান আলী প্রবেশনাল শর্ত সঠিকভাবে পালন করলে এক বছরের সাজা বাতিল হয়ে যাবে।

এ বিষয়ে আসামি পক্ষের আইনজীবী এ টি এম ফখরুল আলম আরো বলেন, ‘সম্প্রতি সাতক্ষীরা আদালতের এটি একটি উল্লেখযোগ্য আদেশ।’

আরও পড়ুন: বিদ্যালয় খোলার সিদ্ধান্ত জানাতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হচ্ছেন শিক্ষামন্ত্রী

এছাড়া সাজাপ্রাপ্ত আসামি হাসান আলী সরদার শর্তগুলো মানছে কি-না সেটি তদারকি করার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সাতক্ষীরা সমাজসেবা অফিসের প্রবেশন অফিসারকে। তাকে আসামির ব্যাপারে তিন মাস পর পর এ বিষয়ে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে।

-ডিবি আর আর।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

ফেসবুকে লাইক দিন