১১ই এপ্রিল, ২০২১ ইং, রবিবার, ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

যে অফিসারের সুনাম শ্যামনগরের (সাতক্ষীরা) সকল শিক্ষকের মুখে

দৈনিক বিদ্যালয় : একজন শিক্ষক শ্যামনগর হিসাব রক্ষণ (একাউন্স) অফিস থেকে বের হয়ে আসলেন। এসে নিচে আমার সাথে দেখা। আমাকে বললেন, ‘নামাজ পড়ে কোন হিন্দু মানুষের জন্য দোয়া করা যায়? আমি বললাম কী বলতে চান? বলল এই অফিসারের জন্য আমি দোয়া কর‍তে চাই!’

লোকটাকে দেখার ইচ্ছে হল। চলে গেলাম শ্যামনগর উপজেলার একাউন্স অফিসে যেয়ে দেখলাম অনেক কয়জন শিক্ষক তার অফিসের মধ্যেই। উনি নিজেই তাদের কাগজ প্রিন্ট করিয়ে দিচ্ছেন। ভাল লাগল। সত্যি বলতে বিনা পয়সায় এই যুগে এত আন্তরিকতার সাথে কেউ এত সদ্ব্যবহার দিয়ে কোন সরকারি অফিসে সেবা দেওয়া যায়, তাকে না দেখলে বিশ্বাস করা যায় না!

উনার সততায় মুগ্ধ এখন শ্যামনগর একাউন্স অফিসে যাদের কাজ থাকে, তারা সবাই।

উনি সৌমেন সরকার। উপজেলা একাউন্স অফিসার শ্যামনগর, সাতক্ষীরা। শিক্ষকদের EFT ফরম পূরণে সকল কার্য দারুন আন্তরিকতায় শেষ করে দিয়েছেন ও দিচ্ছেন। শ্যামনগর উপজেলার সকল শিক্ষকদের মুখে একই কথা। এমন মানুষ একটি সুন্দর আগামী বাংলাদেশের মডেল।

ফরিদ সাদিক নামক একজন তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে তার সম্পর্কে লিখেছেন। ”১০ বছর চাকুরী জীবনে এরকম মানবিক কর্মকর্তা খুবিই কম দেখেছি। ধন্যবাদ জানাচ্ছি জনাব, সৌমেন সরকার, উপজেলা হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা শ্যামনগর, সাতক্ষীরাকে। যিনি অক্লান্ত পরিশ্রম করে প্রায় ১১০০ শিক্ষকের (EFTফরম পুরনে) বিভিন্ন সমস্যা হাসিমুখে সমাধান করে দিয়েছেন। তিনি সেবাপ্রার্থীদের সাথে বন্ধুসূলভ আচরন করে সমস্যাগুলো সমাধান করে দেন। শুভকামনা রইলো এই মানবিক কর্মকর্তা প্রতি।”

আরেকজন একই উপজেলার শিক্ষক, আলহাজ্ব নাজমুল হুদা তার আইডিতে থেকে তাকে নিয়ে পোস্ট দিয়েছেন, ”A/C অফিসের কর্মকর্তা, কর্মচারীদের সম্পর্কে সাধারণ মানুষের ধারণাকে পাল্টে দিতে এমন একজন অফিসার কে আমরা মডেল হিসেবে উপস্থাপন করতে পারি। যে যে ধর্মে বিশ্বাস করিনা কেন তার জন্য প্রাণ ভরে দোয়া করি। একটা গমের শীষের গমগুলো পরিপুষ্ট থাকলে গমের শীষটা জমিনের দিকে ঝুকে থাকে আর গমগুলো চিটে থাকলে শীষের আগাটা সোজা হয়ে থাকে। আমি এই কথায় কি বুঝাতে চাইছি অনেকে তা ভাবছেন তাই তো, ভালো বংশের সন্তানদের আচার আচরণ দেখেই বুঝবেন।”

(উনি শ্যামনগর উপজেলা সদরে অবস্থতিত ১০ নং গোপালপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন সাবেক চাকুরীরত শিক্ষক তন্বী রানী হালদার (বর্তমানে ডুমুরিয়া উপজেলায় কর্মরত) এর স্বামী)

আমি শিক্ষকদের পক্ষে তার সার্বিক সফলতা কামনা। কামনা করি এমন সততার সাথে যেন কাজ করতে পারে সারা জীবন।

-মো. রোকনুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক, শ্যামনগর প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, সাতক্ষীরা।

dainikbidyaloy.com

ফেসবুকে লাইক দিন