১লা আগস্ট, ২০২১ ইং, রবিবার, ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

এসএমসির সভাপতি হাত থেঁতলে দিয়েছে প্রধান শিক্ষককের : ক্ষোভে ফুঁসছে শিক্ষকরা

স্কুল সভাপতির আঘাতে আহত প্রধান শিক্ষক এস এম শামসুদ্দিন

দৈনিক বিদ্যালয় ::: পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জের গৈয়াতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস এম শামসুদ্দিনকে চেয়ার দিয়ে পিটিয়ে হাতের তালু ও আঙ্গুল থেঁতলে দিয়েছে স্ব বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হান্নান খান। ৯ জানুন শুক্রবার জুমার নামাজের পরে বিদ্যালয়ের কক্ষে উক্ত বিদ্যালয়ের সভাপতি এমন ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়।

আহত শিক্ষক এস এম শামসুদ্দিন বলেন যে, তিনি বিদ্যালয়ের কক্ষে বসে উপবৃত্তির তালিকা করছিলেন। এ সময় তার বিদ্যালয়ের এসএমসির (স্কুল ম্যানেজিং কমিটি)র সভাপতি হান্নান খান এসে বিদ্যালয়ের মূল ভবন থেকে পাশে বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত একটি ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে বলে। যে পরিত্যক্ত ঘরটিতে দীর্ঘদিন ধরে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির ভাই আবদুল হামিদ দখল করে রেখে সেখানেই থাকে।

তখন প্রধান শিক্ষক উক্ত কক্ষে বিদ্যুত সংযোগের ‘সাইড কানেকশন’ দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় ক্ষিপ্ত হয়ে সভাপতি প্রথমে প্রধান শিক্ষককে গালিগালাজ করে এবং পরে চেয়ার দিয়ে পেটাতে শুরু করেন।

এপর্যায়ে প্রধান শিক্ষক দুই হাত দিয়ে চেয়ারের আঘাত ঠেকাতে গেলে তাঁর বা হাতের আঙুল ও তালু থেঁতলে যায় এবং কেটে যেয়ে রক্তক্ষরণ হতে থাকে। এরপর একই উক্ত গৈয়াতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. জলিল হাওলাদার ও স্থানীয় ব্যক্তিরা প্রধান শিক্ষককে উদ্ধার করে সরকারি উপজেলা সদরের হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন।

ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতির চেয়ারের আঘাত ঠেকাতে গেলে আমার বাঁ হাতের আঙুল ও তালু থেঁতলে যায় এবং কেটে রক্তক্ষরণ হয়। এ ঘটনার পর সহকারী শিক্ষক মো. জলিল হাওলাদারসহ স্থানীয় ব্যক্তিরা আমাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন।

এবিষয়ে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা কর্মকর্তা মো. ইকবাল হোসেনের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, শিক্ষক শামসুদ্দিনের বাম হাতের তালু এবং আঙ্গুল আঘাত প্রাপ্তির কারণে থেঁতলে গেছে। তিনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন।

এবিষয়ে শিক্ষক সমিতির কলাপাড়া উপজেলা শাখার সভাপতি মো. জাহাঙ্গীর আলম প্রতিবাদ জানিয়েছেন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন। আইনগত ব্যবস্থা এখনো নেওয়া হয়নি। ঘটনাটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শিক্ষকরা ক্ষোভ প্রকাশ করছে ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির উপযুক্ত শাস্তি দাবি জানিয়ে চলেছে সারা দেশের শিক্ষকবৃন্দ।

দুইবারের বেশি সভাপতি হওয়া যাবে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে : হাইকোর্ট

প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা ১ হাজার টাকা করে কিট এলাউন্স পাবে : প্রধানমন্ত্রী

১১-২০ গ্রেডের কর্মচারীদের ৬ষ্ঠ শ্রেণি থেকে সন্তানদের শিক্ষাবৃত্তির দরখাস্তের আহবান

শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের প্রিয় খবর ‘দৈনিক বিদ্যালয়’ এর সাথে থাকুন। শিক্ষা বিষয়ক সকল খবর পড়ুন এখানেই।

-ডিবি আর আর।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

ফেসবুকে লাইক দিন