১৭ই অক্টোবর, ২০২১ ইং, রবিবার, ২রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিক্ষা সহায়ক ভাতার সকল খুটিনাটি

দৈনিক বিদ্যালয় ডেস্ক :: ২০১৮ সালের সর্বশেষ অর্থ বিভাগের পরিপত্র অনুযায়ী গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর সন্তানদের শিক্ষা সহায়ক ভাতা দেয়ার বয়সসীমা দুই বছর বাড়িয়েছে। সেদিন থেকে সরকারি চাকরিজীবীদের সন্তানরা ২৩ বছর বয়স পর্যন্ত এ ভাতা পাবেন। এটাই বেসামরিক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য সর্বশেষ বয়সের বিধান। তথা পাঁচ বছর সন্তানের বয়স থেকে ২৩ বছর বয়স পর্যন্ত সন্তানের লেখাপড়ার জন্য বাবা বা মা যদি সরকারি কর্মচারী হয় এবং সন্তান যদি লেখাপড়া তবে এই ভাতা প্রাপ্ত হবেন।

এবিষয়ে শিক্ষা সহায়ক ভাতা পাওয়ার বয়স দুই বছর বাড়িয়ে তিনটি আদেশ সংশোধন করে গত ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে প্রজ্ঞাপন জারি করে অর্থ বিভাগ।

সেই সংশোধন করা আদেশ তিনটি হলো- ‘চাকরি (বেতন ও ভাতাদি) আদেশ- ২০১৫’ ‘চাকরি (স্ব-শাসিত এবং রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠানগুলো), (বেতন ও ভাতাদি) আদেশ- ২০১৫’ এবং ‘চাকরি (ব্যাংক, বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান) (বেতন ও ভাতাদি) আদেশ- ২০১৫।

আদেশ অনুযায়ী, সরকারি কর্মচারীদের সন্তানরা মাসে পাঁচশত টাকা করে শিক্ষা সহায়তা ভাতা পান। সর্বোচ্চ দুজন সন্তানকে এ ভাতা দেয়া হয়।

এখন আলোচনা করছি যৌথ বা সামরিক বাহিনীর সদস্যদের সন্তানদের ক্ষেত্রে ১০ জানুয়ারি ২০২১ তারিখে যে গেজেটটি জারি হয়েছে সেটি নিয়ে। হ্যা, এই গেজেটর মাধ্যমে তাদের সন্তানদের ক্ষেত্রে ও বয়সের সীমা বৃদ্ধি করে ২৩ বছর করা হয়েছে।

এবার আসা যাক শিক্ষা সহায়ক ভাতা নিয়ে কয়েকটি প্রশ্নের উত্তরে। যার মাধ্যমে আপনার শিক্ষা সহায়ক ভাতা সম্পর্কে সম্ভবত আর কিছু জানার আগ্রহ থাকবে না!

# কয় সন্তানের জন্য কত ভাতা পান সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরাঃ সরকারি চাকুরিজীবিরা সরকার কর্তৃক একটি সন্তানের জন্য ৫০০টাকা। একাধিক সন্তানের জন্য ১,০০০ টাকা শিক্ষা ভাতা। দুটি সন্তানের অধিক সন্তানের জন্য শিক্ষা ভাতা পান না।

# বয়সের সময়সীমা কতঃ পূর্বে ২০১৮ সাল এটি ছিল সন্তানের বয়স ২১ বছর। এখন সর্বশেষ ২৩ বছর করা হয়েছে। এর জন্য প্রতি বছরের শুরুতে সন্তানের স্কুল হতে অধ্যয়নরত আছে এমন প্রত্যয়ন পত্র দাখিল করতে হয়।

# পালিত সন্তানের জন্য শিক্ষা সহায়ক ভাতা পাওয়া যায় কিনাঃ হ্যা, পালিত সন্তানের জন্যও শিক্ষা ভাতা পাওয়া
যায়।

# কোন শ্রেণি থেকে কোন শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষাভাতা পাওয়া যায়ঃ ১ম শ্রেনী থেকে স্নাতক বা স্নাতকোত্তর পর্যন্ত
পাওয়া যায়।

# ৩১ জানুয়ারী ২০১৮ পূর্বে কত বছর পর্যন্ত শিক্ষা ভাতা নেয়া যেতঃ সন্তানের বয়স ২১ বছর পর্যন্ত।

# বর্তমানের কত বছর পর্যন্ত শিক্ষা সহায়ক ভাতা পাওয়া যায়ঃ এখন থেকে সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সন্তান ২৩ বছর পর্যন্ত শিক্ষা ভাতা পাবে।

# পিআরএল এ থাকলেও কি এ শিক্ষা
ভাতা পাওয়া যাবেঃ হ্যা, পাওয়া যাবে।

# এক সন্তানের জন্য কতঃ ৫০০ টাকা মাসিক।

# তিন বা তার অধিক সন্তানের জন্য শিক্ষা কতঃ ১০০০ টাকা মাসিক। সন্তান যতই থাকুক
৫০০+৫০০ = ১০০০ টাকা এর বেশি নয়।

# ভাতা পাবে কত বছর বয়স থেকেঃ সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সন্তানদের পড়াশুনার ক্ষেত্রে এই ভাতা প্রাপ্তির জন্য সর্বনিম্ন বয়সসীমা হল পাঁচ বছর।

# পাঁচ বছরের কম বয়স হলে কী শিক্ষা ভাতা নেওয়া যাবেঃ না। তবে বিদ্যালয়ে ভর্তি করতে বাঁধা নেই। এখন ৪ বছর থেকে প্রাক প্রাথমিকে শ্রেণিতে ভর্তি করা যায়।

# বয়স পাঁচ বছরের আগে শিশু শ্রেণিতে ভর্তি করে কী ভাতা উত্তোলন করা যাবেঃ যে শ্রেনিতেই ভর্তি করেন না কেন, বয়স ৫ হলেই কেবল এই শিক্ষা সহায়ক ভাতা নিতে পারবেন। তাছাড়া অডিট আপত্তি হবে। তবে হ্যা, অনেক দপ্তরের কর্মচারীদের প্লে বা নার্শারীতে সন্তানকে ভর্তি দেখিয়ে এই ভাতা উত্তোলন করতে দেখা যায়।

# স্বামী ও স্ত্রী দুজনেই চাকুরী করলে দু’জনেই পাবেঃ না। একজন সর্বোচ্চ ১০০০ টাকা তুলতে পারবেন।

শিক্ষা সহায়ক ভাতা সংক্রান্ত গেজেট সমুহঃ

পোস্টটি ভালো লাগলে ফেসবুকে শেয়ার করুন!

আরও পড়ুনঃ আইবাস++ সফটওয়্যার এর কাজ কী ও ইএফটি সহ এর সুবিধা সমুহ

কবে শুরু হবে প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলী জানালেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক

শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের প্রিয় খবর 'দৈনিক বিদ্যালয়' এর সাথে থাকুন। শিক্ষা বিষয়ক সকল খবর পড়ুন এখানেই। দৈনিক বিদ্যালয়ের ফেসবুক পেইজ 'দৈনিক বিদ্যালয়' ও 'প্রাথমিক শিক্ষা বার্তা' পেইজ সমুহে লাইক বাটনে ক্লিক করে শিক্ষা বিষয়ক পরবর্তী নিউজের সাথে থাকুন।

-ডিবি, আর আর।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

ফেসবুকে লাইক দিন