২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং, মঙ্গলবার, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

যে কারণে বিদ্যালয় খুলেও আবার বন্ধ করে দিতে হল

দৈনিক বিদ্যালয় নিউজ ডেস্ক :: বৈশ্বিকতা করোনা পরিস্থিতির মধ্যে বহুদিন বন্ধ থাকার পর ভারতে এই ভাইরাসের প্রকোপ কমে আসায় রাজ্যগুলোয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমুহ খুলতে শুরু করেছে। কিন্তু এর মধ্যে কেরালায় বিদ্যালয় সমুহ খোলার পর দুটি সরকারি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকবৃন্দ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এবং শিক্ষার্থী ও শিক্ষকেরা করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পরই বিদ্যালয় দুটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

জানাগেছে ভারতের দক্ষিণাঞ্চলের রাজ্য কেরালায় কয়েক দিন আগেই দশম থেকে দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়ুয়াদের জন্য মাধ্যমিক বিদ্যালয় খুলে দেওয়া হয়। এরপর সেই রাজ্যের মালাপ্পুরাম জেলার পাশাপাশি অবস্থিত দুটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ১৮৯ জন শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। একই সঙ্গে সেই বিদ্যালয় দুটির ৭০ জন শিক্ষক ও ককর্মচারীরা ও আক্রান্ত হয়েছেন।

মালাপ্পুরাম জেলার এক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান, গত রোববার মারানচেরিতে একটি সরকারি বিদ্যালয়ের ১৫০ শিক্ষার্থী এবং ৩৪ জন শিক্ষক করোনার আক্রান্ত হয়েছেন। সেই বিদ্যালয়ের একজন রোগী শনাক্ত হওয়ার পরই সকলের করোনা টেস্ট করানো হয়েছিল। এরপর একই এলাকার পুন্নানি এলাকার ভ্যান্নেরি উচ্চবিদ্যালয়ের ৩৯ শিক্ষার্থী এবং ৩৬ শিক্ষককে করোনায় আক্রান্ত পাওয়া যায়।

এবিষয়ে এ দুটি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সব শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও স্কুলের কর্মকর্তা ও কর্মচারীর করোনা টেস্ট করা হয়েছিল।

ইন্ডিয়া টুডে ও দ্য হিন্দুর খবর সুত্রে জানা গেছে, এতজন শিক্ষক ও শিক্ষার্থী কীভাবে করোনায় আক্রান্ত হল, সেবিষয়টি তদন্ত করছে সে রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা।

উল্লেখ্য, গত বছর জানুয়ারি মাসে কেরালাতে ভারতের প্রথম করোনা রোগী চিহ্নিত হয়েছিল। এছাড়া করোনার এই প্রাদুর্ভাবের মধ্য দীর্ঘ ১১ মাস পর আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি তারিখে বিদ্যালয় সমুহ খুলছে পশ্চিমবঙ্গে।

দেশ বিদেশের শিক্ষার খবর জানতে নিয়মিত ‘দৈনিক বিদ্যালয়’ এর নিউজ পড়ুন। -ডিবি আর আর।

তোমার সব শিক্ষককে টিকা দিয়ে নাও, যেহেতু আমরা যেকোনো সময় স্কুল খুলে দেব

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

ফেসবুকে লাইক দিন