২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং, রবিবার, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

উচ্চতর গ্রেড কারা পাবেন, কারা পাবেন না

চাকুরীর বিধান : উচ্চতর গ্রেড

ডিবি ডেস্ক :: সরকারি চাকুরীজীবীদের মধ্যে উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্তি বিষয়টি ২০১৫ সালের জাতীয় বেতন স্কেল ঘোষণার আগে ছিল না। এর আগে টাইম স্কেল প্রাপ্তির কথা শোনা যেত। তখন ৩ টি টাইমস্কেল ছিল। এখন সেটি কাটছাট করে দুইটি উচ্চতর গ্রেডে আনা হয়েছে। যা ১০ ও ১৬ বছর পূর্তিতে যদি প্রমোশন না পান সেক্ষেত্রে দেওয়া হয়ে থাকে।

যারা ব্লক পোস্ট বা একই পদে থেকে পদোন্নতি বঞ্চিত হন, তাদের সুবিধার্থে মূলত উচ্চতর গ্রেড। এক্ষেত্রে আমাদের আজকের আলোচনা মূলত কারা উচ্চতর গ্রেড পাবেন আর কারা পাবেন না। এছাড়া উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্তির শর্ত সমুহ কী? এটি নিয়েও আমাদের আজকের আলোচনা।

এবিষয়ে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ থেকে ২০১৫ সালে জাতীয় বেতন স্কেল ঘোষণা হলে তার পরে ২০১৬ সালের ২১ সেপ্টেম্বর তারিখে এক পরিপত্র জারি করা হয় জাতীয় বেতন স্কেল-২০১৫ স্পষ্টিকরণের জন্য। ১। অবসরােত্তর ছুটিভােগীদের বেতন নির্ধারণ, ২। উচ্চতর গ্রেড কারা পাবেন, কারা পাবেন না ও ৩। উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্তির শর্ত সমুহ স্পষ্ট করে তুলে ধরা হয়।

সেই পরিপত্রে বলা হয়:
ক। সরকারি চাকুরী হতে অবসরােত্তর ছুটিভােগীদের বেতন নির্ধারণ:

অবসরােত্তর ছুটি (PRL) ভােগরত কর্মচারী অবসরােত্তর ছুটিকালীন সময়ে শুধু একটি বর্ধিত বেতন (Increment) পাইবেন, যাহা কেবলমাত্র তাঁহার পেনশন নির্ধারণের ক্ষেত্রেই প্রযােজ্য হইবে।
খ। উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্তির শর্ত
/ সন্তোষজনক চাকরি এবং স্বয়ংক্রিয়ভাবে উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্তি: সন্তোষজনক চাকরির ব্যাখ্যা: সন্তোষজনক চাকরি বুঝাইতে কর্মচারিদের পদোন্নতিসহ প্রযােজ্য ক্ষেত্রে যেইভাবে সন্তোষজনক চাকরি বিদ্যমান বিধিবিধান অনুসৃত হইয়া থাকে বিবেচ্য উচ্চতর গ্রেডে বেতন প্রাপ্তির
ক্ষেত্রেও অনুরূপ বিধি-বিধানসহ প্রযােজ্য হইবে।

স্বয়ংক্রিয় এর ব্যাখ্যা: বিভাগীয় পদোন্নতি কমিটি (ডিপিসি) ব্যতিরেকে প্রযােজ্যক্ষেত্রে মন্ত্রণালয়ের সচিব/নিয়ােগকারী কর্তৃপক্ষ অথবা ক্ষমতাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এর অনুমােদন গ্রহণপূর্বক অফিস আদেশ জারির মাধ্যমে উচ্চতর গ্রেড প্রদানের বিষয়টি নিস্পত্তি করিতে হইবে।
গ। উচ্চতর গ্রেড কারা পাবেন কারা পাবেন না:

১। একই পদে কর্মরত কোন কর্মচারী দুই বা ততােধিক উচ্চতর স্কেল বা টাইমস্কেল/সিলেকশন গ্রেড (যে নামেই অভিহিত হউক না কেন) পাইয়া থাকিলে তিনি এই অনুচ্ছেদের অধীন উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্য হইবেন না।

২। একই পদে কর্মরত কোন কর্মচারী একটিমাত্র উচ্চতর স্কেল (টাইমস্কেল)/সিলেকশন গ্রেড (যে নামেই অভিহিত হউক না কেন) পাইয়া থাকিলে উচ্চতর স্কেল বা টাইমস্কেল/সিলেকশন গ্রেড পাইবার তারিখ হইতে পরবর্তী ৬ (ছয়) বছর পূর্তির পর ৭ম বছরে পরবর্তী উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্য হইবেন।

৩। একই পদে কর্মরত কর্মচারী কোন প্রকার উচ্চতর স্কেল (টাইমস্কেল)/সিলেকশন গ্রেড (যে নামেই অভিহিত হউক) না পাইয়া থাকিলে সন্তোষজনক চাকরির শর্তে তিনি ১০(দশ) বৎসর চাকরি পূর্তিতে ১১তম বছরে পরবর্তী উচ্চতর গ্রেড এবং পরবর্তী ৬ বছরে পদোন্নতি না পাইলে ৭ম বছরে পরবর্তী উচ্চতর গ্রেড প্রাপ্য হইবেন।

৪। জাতীয় বেতনস্কেল, ২০১৫ এর ৭(১) ও ৭(২) এ প্রদত্ত সুবিধা কোন ক্রমেই ১৫/১২/২০১৫ তারিখের পূর্বে প্রদান করা যাইবে না।
আরও পড়ুন : গুগলমিটে শিক্ষকদের অনলাইন ভিত্তিক পাঠদানে নতুন নির্দেশনা

৪৮ হাজারের বেশি প্রাথমিক শিক্ষক টাইমস্কেলের জন্য আদালতে যাচ্ছেন

প্রাথমিক শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেডে বেতন ফিক্সেশন সহজ করতে উদ্যোগ গ্রহন

প্রাথমিকে বহিরাগতদের সিনিয়রিটি ও চলতি দায়িত্ব বিষয়ে ডিজির বক্তব্য

ডিবি আর আর।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

ফেসবুকে লাইক দিন