২৩শে অক্টোবর, ২০২১ ইং, শনিবার, ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

অনুমতিহীন শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করলে যাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে অধিদপ্তর

শিক্ষা কার্যক্রম

ডিবি ডেস্ক : : শিক্ষা সংক্রান্ত প্রকল্পগুলোর বাস্তবায়ন কার্যক্রম এই কভিড-১৯ পরিস্থিতির মধ্যে যখন দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ তখনও চালু রেখেছে দেশের এনজিও গুলো।

সেজন্য অধিদপ্তর থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, যাতে এই কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে অনুমতি ছাড়া কোনও বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা-এনজিও শিক্ষা সংক্রান্ত প্রকল্প বাস্তবায়ন অথবা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কেন্দ্রিক কোনও কার্যক্রম (যথা, পাঠদান কার্যক্রম) পরিচালনা না করতে পারে।

আরও পড়ুন : প্রাথমিকে বহিরাগতদের সিনিয়রিটি ও চলতি দায়িত্ব বিষয়ে ডিজির বক্তব্য

দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আবার ছুটি বাড়ানো হল

প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও কলেজের উপবৃত্তির টাকা বাড়ছে : আরো কিছু সুখবর

প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষার্থীদের টিফিনে যা খেতে দেওয়া হবে

প্রাথমিক শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেডে বেতন ফিক্সেশন সহজ করতে উদ্যোগ গ্রহন

এ বিষয়ে ১০ জুন, বৃহস্পতিবার অধিদফতরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসরুল আলম স্বাক্ষরিত আদেশে এ নির্দেশ দেয়া হয়। যে অফিস আদেশে বিভাগীয় উপরিচালকদের মাঠ পর্যায়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর।

মনসুরুল আলম কর্তৃক অফিস আদেশে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে গত ১৭ মার্চ থেকে সারাদেশে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্বাভাবিক পাঠদান বন্ধ আছে। এই সময়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশুদের লেখাপড়া অব্যাহত রাখার স্বার্থে বিকল্প উপায়ে যেমন, সংসদ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতার, কমিউনিটি রেডিও এবং শিক্ষার্থীদের বাড়ির কাজ দেওয়ার মাধ্যমে শিখন-শেখানো কার্যক্রম চলমান রয়েছে প্রাথমিক পর্যায়ের।

কিন্তু এই পরিস্থিতির মধ্যে কিছু এনজিও প্রাথমিক শিক্ষা সংক্রান্ত প্রকল্প বাস্তবায়ন কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে এরূপ কার্যক্রম চলাকালে কোনও বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার বিদ্যালয়ভিত্তিক এ সংক্রান্ত যে কোনও কার্যক্রম বাস্তবায়নের অবকাশ নেই।

সেকারণে কোনও এনজিও প্রাথমিক শিক্ষা সংক্রান্ত প্রকল্প বাস্তবায়ন অথবা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কেন্দ্রিক যে কোনও কার্যক্রম কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ছাড়া যেন পরিচালনা না করতে পারে সে জন্য অফিস আদেশে বিভাগীয় উপপরিচালকদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়।

উক্ত আদেশে বিষয়টিকে ‘অতীব জরুরি’ উল্লেখ করে অফিস আদেশে বলা হয়, এ বিষয়ে ব্যত্যয় ঘটলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ব্যক্তিগতভাবে দায়ী থাকবেন বলে উল্লেখ করা হয়।

ডিবি আর আর।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

ফেসবুকে লাইক দিন