২৩শে অক্টোবর, ২০২১ ইং, শনিবার, ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বৃদ্ধিকৃত ছুটিতে শিক্ষকরা কী শিক্ষার্থীদের বাড়িতে বাড়িতে যাবে

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর

ডিবি ডেস্ক : : ১৩ তারিখে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমুহ খোলার কথা থাকলেও খুলছে না, আবার ছুটি বাড়ল মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার জন্য আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত। এই ছুটিতে সকল সরকারি, বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কিন্ডারগার্টেন, কউমি ও হাফেজি মাদ্রাসা সমুহ বন্ধ থাকবে।

চলমান এই ছুটির সময়ে শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মচারী ও অভিভাবকরা কি কি কাজ করবেন সে বিষয়ে ও নির্দেশনা জানিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

আরও পড়ুন: অনুমতিহীন শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করলে যাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে অধিদপ্তর

শিক্ষকদের যাতে হয়রানির শিকার না হতে হয় : অধিদপ্তরের নির্দেশনা

প্রাথমিকে বহিরাগতদের সিনিয়রিটি ও চলতি দায়িত্ব বিষয়ে ডিজির বক্তব্য

উচ্চতর গ্রেড কারা পাবেন, কারা পাবেন না

১২ জুন, শনিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে যে, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে করোনা পরিস্থিতির অবনতি এবং কিছু অঞ্চলে আংশিকভাবে কঠোর লকডাউন কার্যকর থাকায় পূণরায় ছুটি বৃদ্ধি করা হল।

এই ছুটি প্রাথমিকের ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষকদের সার্বিক নিরাপত্তা এবং করোনা বিষয়ক জাতীয় পরামর্শক কমিটির সঙ্গে পরামর্শ করেই বাড়ানো হয়েছে।

উক্ত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো যা বলা হয়েছে তা হল, চলমান এই বৃদ্ধিকৃত ছুটির সময়ে প্রাথমিকের সকল শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মচারী ও অভিভাবকরা নিজ নিজ বাসস্থানে অবস্থান করবেন। তবে শিক্ষকদের অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে হবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শিক্ষার্থীদের যাতে বাসস্থানে অবস্থান করে এ বিষয়টি শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা নিশ্চিত করবেন। এছাড়া সকলে যাতে বাড়িতে অবস্থান করে, সে বিষয়টি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করবেন স্থানীয় প্রশাসন।

এবং স্ব-স্ব বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা তাদের নিজ নিজ শিক্ষার্থীরা বাসস্থানে অবস্থান করছে কিনা এবং পাঠ্যবই অধ্যায়ন করছে কিনা সে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট অভিভাবকদের মাধ্যমে নিশ্চিত করবেন।

ছুটি সংক্রান্ত প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রাধনমন্ত্রীর কার্যালয়, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ কর্তৃক বিভিন্ন সময়ে জারি করা নির্দেশনা ও অনুশাসনগুলো শিক্ষার্থীসহ সবাইকে মেনে চলতে হবে।

উল্লেখ্য, এর আগে শিক্ষার্থীদের সমাবেত করে পাঠ্য কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশনা ইতিপূর্বে দেওয়া হয়েছিল। হ্যা, তবে অনলাইনে ক্লাস নিতে বলা হয়েছে শিক্ষকদের।

-ডিবি আর আর।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

ফেসবুকে লাইক দিন