প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সময় আসন্ন

নিয়োগ

নিউজ ডেস্ক : গত বছরের মার্চ থেকে ধারাবাহিক বন্ধ থাকার পর করোনা পরিস্থিতির কারণে আগামী সেপ্টেম্বর মাসের শুরুতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার চিন্তাভাবনা করছে সরকার। এরই মধ্যে শিক্ষক নিয়োগের সার্কুলার দিয়েছিল সরকার। এবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা শুরু করতে চায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। সেই পরীক্ষা অনুষ্ঠানে সব ধরনের প্রস্তুতি প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে জানা গেছে, বর্তমানে সেই নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র তৈরির কাজ শুরু করা হবে।

আরও পড়ুনঃঃ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জাতীয় শোক দিবস যেভাবে পালন করতে হবে

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সেপ্টেম্বরে খোলার বিষয়ে যা বলছে সরকার

৯ আগস্ট, সোমবার এ বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক এ এম মনছুরুল আলম জানিয়েছেন, কোভিড-১৯ পরিস্থিতি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার কারণে নিয়োগ পরীক্ষা শুরু করা সম্ভব হয়নি। তবে এ অবস্থার মধ্যেও আমরা নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠান সংক্রান্ত টেকনিক্যাল কাজ এগিয়ে রেখেছি। তিনি জানান, ইতোমধ্যে পরীক্ষার উত্তরপত্র মূল্যায়নের সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্টের কাজ শেষ হয়েছে। এছাড়া পরীক্ষার বিষয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সঙ্গে আমাদের চুক্তিও সম্পন্ন করা হয়ে গেছে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এর ভাষ্যমতে, দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হলে শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। আগামী মাসের শুরুতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে এবং এ জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন করার কাজ নতুনভাবে শুরু করতে নির্দেশ দিয়েছে অধিদপ্তর। তিনি আরও জানান, আগামী সেপ্টেম্বর মাসে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হলে সেই একই মাসে নিয়োগ পরীক্ষা শুরু করার চিন্তা করছে সংশ্লিষ্টরা।

উল্লেখ্য, এবারের নিয়োগে দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে ৩২ হাজারের বেশি সহকারি শিক্ষক নিয়োগ দেবে সরকার। যার মধ্যে প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণির জন্য সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে মোট ২৫ হাজার ৬৩০ জন আবেদনকারীকে। বাকিদেরকে সহকারী শিক্ষক পদে এই নিয়োগ দেওয়া হবে। অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, এবারের প্রাথমিকে নিয়োগ পরীক্ষায় অনলাইনে ১৩ লাখ ৫ হাজারের বেশি আবেদন জামা দিয়েছে দেশের শিক্ষিত বেকার ও চাকুরী প্রত্যাশীরা। সব শেষ কথা হল, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই আগামী মাসে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সম্ভাবনা বেশি থাকবে; আর পরিস্থিতির আরো অবনতি ঘটলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সহ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার সময় ও একই সাথে পিছিয়ে যাবে।

READ MORE  সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগে কোটা বাতিল চেয়ে রিট

ডিবি আর আর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *