যুবকদের শিক্ষা ও কর্মের ক্ষতি পোষাতে টিআইবির ৯ সুপারিশ

শিক্ষা মন্ত্রণালয়

ডিবি নিউজ ডেস্ক : ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বা টিআই সারা বিশ্বের কাছে পরিচিত একটি অলাভজনক বেসরকারী প্রতিষ্ঠান। এরা আন্তর্জাতিক উন্নয়নে বিভিন্ন সংস্থা ও রাজনৈতিকভাবে সম্পৃক্ত দূর্নীতি পর্যবেক্ষণপূর্বক জনসসাধারণের কাছে সেই দূর্নীতির চিত্র তুলে ধরে।

এরা বিশ্বব্যাপী দূর্নীতির তুলনামূলক চিত্র ‘সূচকের’ মাধ্যমে প্রতি বছর বিশ্বের বিভিন্ন দেশের দূর্ণীতির চিত্র প্রকাশ করে থাকে। জার্মানীর বার্লিন নগরীতে অবস্থিত টিআই এরস দর দফতর। ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের মত আরও ৭০টিরও বেশি দেশে তাদের এই দূর্নীতির সূচক বা আসল চিত্র উপস্থাপনের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে আসছে।

আরও পড়ুনঃঃ
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জাতীয় শোক দিবস যেভাবে পালন করতে হবে

প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার সময় আসন্ন

এবছর প্রাথমিকে অটোপাস নয়, ক্লাস ও পরীক্ষা যেভাবে নেওয়া হবে

টিআইবি বা ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের মতে, বৈশ্বিক মহামারিতে শিক্ষার্থীরা দীর্ঘদিন স্বশরীরে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা কার্যক্রম থেকে দূরে থাকা, কর্মসংস্থানের অনিশ্চয়তা এবং ভবিষ্যত কর্মসংস্থানের চ্যালেঞ্জে মোকাবিলায় দেশের তরুণ সমাজ মানসিক ও আর্থ-সামাজিক গভীর সংকটপূর্ণ সময় পার করছে। এহেন পরিস্থিতি বিবেচনায় যুব শিক্ষার্থীদের শিক্ষা ও ভবিষ্যত কর্মসংস্থান নিশ্চিতে দ্রুত ও কার্যকর মনোযোগ ও বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণের দাবি জানিয়েছে তারা।

এছাড়া টি আই বি এই মহামারির কারণে শিক্ষা ও কর্মক্ষেত্রে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে মোট ৯টি সুপারিশ করেছে।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান ১২ই আগস্ট, বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক যুব দিবস উপলক্ষে গণমাধ্যমে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, করোনা সংকটে বহু তরুণ স্বেচ্ছাসেবার অনন্য নজির স্থাপন করলেও অনেক ক্ষেত্রেই তারা রাজনৈতিক বাধার সম্মুখীন হয়েছেন। এর বাইরেও তিনি এ সময়ের আরো অসংগতির কথা তুলে ধরে যুবকদের শিক্ষা ও কর্মসংস্থানে ক্ষতি পোষাতে ৯ দফা সুপারিশ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

১. শিক্ষার্থীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে স্বল্প সময়ের মধ্যে করোনার টিকা প্রদান করে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে অতিদ্রুত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ খুলে দেওয়ার সুপারিশ করেছে তারা।

READ MORE  ১৭ তারিখের মধ্যে টিকা নিতে হবে শিক্ষকদের

২. স্বল্প, মধ্যম ও দীর্ঘমেয়াদী সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনার মাধ্যমে সকল পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন কার্যক্রম নিশ্চিত করে পরবর্তী স্তরে উত্তরণের ব্যবস্থা নিতে সুপারিশ করেছে তারা।

৩. ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের শ্রেণীকক্ষে ফিরিয়ে আনতে বিশেষ উদ্যোগ নিতে হবে। বিশেষ করে, নারী, প্রতিবন্ধী, আর্থিকভাবে অসচ্ছ্বল, আদিবাসী ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ প্রণোদনার মাধ্যমে নিরবচ্ছিন্ন শিক্ষাগ্রহণ নিশ্চিত করতে সুপারিশ করেছে তারা।

৪. স্বল্প, মধ্যম ও দীর্ঘমেয়াদী সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনার মাধ্যমে তরুণদের যথাযথ কর্মসংস্থান তৈরি করতে সুপারিশ করেছে তারা।

৫. তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্য প্রণোদনার পাশাপাশি করোনায় যেসব ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পখাত থেকে তরুণরা কর্মহীন হয়েছে বিশেষ প্রণোদনার মাধ্যমে সেগুলো চালুর উদ্যোগ নিতে সুপারিশ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

৬. কারিগরি ও বিশেষ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিকল্প পেশার (যেমন আউটসোর্সিং, ফ্রিল্যান্সিং) জন্য কর্মহীন তরুণ বা নতুন গ্র্যাজুয়েটদের প্রস্তুত করতে সুপারিশ করেছে টি আই বি।

৭. সরকারী-বেসরকারী যেসকল চাকুরীর পরীক্ষা ও নিয়োগ বন্ধ রয়েছে অবিলম্বে সেগুলোর প্রক্রিয়া শুরু করতে হবে এবং নতুন বিজ্ঞপ্তির ক্ষেত্রে কোভিড অতিমারির প্রেক্ষাপট বিবেচনায় যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার মানদন্ড নির্ধারণ করতে সুপারিশ করেছে।

৮. সকল চাকুরির নিয়োগ প্রক্রিয়া দুর্নীতিমুক্ত রেখে মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে সমান প্রতিযোগিতা নিশ্চিত করতে সুপারিশ করেছে।

৯. তরুণসমাজসহ সকল নাগরিকের ব্যক্তিগত গোপনীয়তা ও স্বাধীন মত প্রকাশের সুযোগ নিশ্চিত করতে সুপারিশ করেছে তারা।

উপরোক্ত সুপারিশ বাস্তবায়নে আইনী ও নীতিকাঠামোর প্রয়োজনীয় আমূল সংস্কার করার সুপারিশ ও টিআইবি’ এর।

ডিবি আর আর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *