৫ই অক্টোবর, ২০২২ ইং, বুধবার, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

২২ তারিখে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে : প্রাথমিক থাকবে আরো ২ সপ্তাহ

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রী

দৈনিক বিদ্যালয় প্রতিবেদন : দেশে করোনা সংক্রমণ কমে যাওয়ায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হচ্ছে। আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি তারিখে  শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হচ্ছে। এবার প্রথমে ১২ বছরের বেশি বয়সী শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে। তবে ১২ বছর থেকে যাদের বয়স কম, তাদের জন্য স্কুল খুলবে আরও প্রায় দুই সপ্তাহ পরে। ১৬ ফেব্রুয়ারি, বুধবার রাতে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি প্রথম আলোকে এসব তথ্য জানান।

সংসদ নির্বাচনের আগে নতুন বেতন কাঠামো : বেতন বৈষম্য নিরসন

ফেসবুক মেসেঞ্জারে নতুন নিরাপত্তা সুবিধা এনেছে

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নতুন সচিব

শিক্ষামন্ত্রীর এই বক্তব্যের আগে বুধবার রাত ১০টা থেকে প্রায় এক ঘণ্টা করোনাবিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির সঙ্গে বৈঠক করেন শিক্ষামন্ত্রীসহ শিক্ষা প্রশাসনের শীর্ষ সব কর্মকর্তারা। বৈঠকে তারা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার পরামর্শ দেন।

জাতীয় পরামর্শক কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ সহিদুল্লা এবিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন, করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার বিষয়টি বিবেচনা করা যেতে পারে। তিনি বলেন, সরকার চাইলে ২২ ফেব্রুয়ারি থেকেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে পারে।

এখানে উল্লেখ্য যে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। শিক্ষামন্ত্রীর ভাষ্য থেকে ধারণা করা হচ্ছে স্বাস্থবিধি মেনে মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে উপরের সকল শ্রেণি ও প্রতিষ্ঠান ২২ তারিখে খুলে দেওয়া হলেও প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো ১-২ সপ্তাহ পরে পরিস্থিতি বুঝে খুলা দেওয়া হবে।

আরও উল্লেখ্য যে, করোনার সংক্রমণের কারণে ২০২০ সালের ১৭ মার্চ দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছিল সরকার। এরপর করোনা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলে দীর্ঘ ১৮ মাস পর গত বছরের সেপ্টেম্বরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়। তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিলেও শ্রেণি কার্যক্রম চলছিল স্বল্প পরিসরে এবং সব শ্রেণির ক্লাস সব দিন হচ্ছিল না। কিন্তু এরপর নতুন করে আবার করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গত ২১ জানুয়ারি আবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি ঘোষণা করে সরকার। এপর্যায়ে প্রথম দফায় এই ছুটি শেষ হওয়ার কথা ছিল ৬ ফেব্রুয়ারি। কিন্তু পরে তা আবার বাড়িয়ে ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত করা হয়।

দৈনিক বিদ্যালয়/আর,আর।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

ফেসবুকে লাইক দিন