প্রাথমিককে নিয়োগ পরীক্ষা নিয়ে নতুন নির্দেশনা

নিয়োগ

দৈনিক বিদ্যালয় নিউজ : এবারে দুই ধাপে প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম ধাপে এমাসের ২২ তারিখে ৬১ জেলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সিদ্ধান্তটিতে এখনও অটল প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। যদিও এই শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা কয় ধাপে হবে সেটা নিয়ে ধোঁয়াশা এখনো কাটেনি । তবে অধিদপ্তর সূত্রে জানাগেছে, আগামী দু’এক দিনের মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে পরীক্ষার বিষয়ে নির্দেশনা জারি করা হবে। মঙ্গলবার প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এবিষয়ে জানা গেছে, পরীক্ষা অনুষ্ঠিত করা নিয়ে সম্প্রতি জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের সঙ্গে অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহাম্মদ মনসুরুল আলম ভার্চুয়াল সভা করেছেন। সেই সভা থেকে আগামী ২২ এপ্রিল সারাদেশে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা জেলা পর্যায়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ৬১ জেলায় এই নিয়োগ পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। পার্বত্য তিন জেলায় নীতিমালা অনুযায়ী জেলা পরিষদের তত্ত্বাবধানে এ পরীক্ষা হবে।

এবিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা ২২ এপ্রিল হবে বলে যে সিদ্ধান্ত হয়েছিল, এখনও সে সিদ্ধান্তেই অটল আছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। সেই সূত্র থেকে আরও জানা যায়, নিয়োগ পরীক্ষা শুরুর এক সপ্তাহ আগে থেকে প্রার্থীদের প্রবেশপত্র বিতরণ করা হবে।

অধিদপ্তর কর্মকর্তা জানান, বিগত সময়ে এই শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় বিভিন্ন ধরনের অসংগতির খবর পাওয়া গেছে। এজন্য এবারের পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে আয়োজনে করণীয় সবকিছু করছি। এছাড়া অধিদপ্তরে প্রায় প্রতিদিনই সভা করছি। এবার অন্য সবকিছুর চেয়ে এই পরীক্ষাকে গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে।

এখানে প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, দেশে প্রাথমিক বিদ্যালয় দমুহে সহকারী শিক্ষকের ৩২ হাজার ৫৭৭টি শূন্য পদে নিয়োগের জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্ততর ২০২০ সালের ২০ অক্টোবর মাসে শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। কিন্তু বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। এছাড়া ইতোমধ্যে অবসরজনিত কারণে আরও ১০ হাজারেরও বেশি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য হয়ে পড়েছে। যার ফলে দেশের প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষক সংকট দেখা দিয়েছে।

READ MORE  প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্যানেলে শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে অধিদপ্তর ঘেরাও

এ সমস্যার সমাধানকল্পে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় আগের বিজ্ঞপ্তির শূন্য পদ ও বিজ্ঞপ্তির পরের শূন্য পদ মিলিয়ে প্রায় ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ২৫ অক্টোবর শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার অনলাইন ভিত্তিক আবেদন শুরু হয়। যাতে ১৩ লাখ ৯ হাজার ৪৬১ জন নিয়োগ প্রার্থী আবেদন করেন।

ডিবি আর আর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *