১৭ই মে, ২০২২ ইং, মঙ্গলবার, ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

যেভাবে আরও ১১ লাখ নতুনভাবে বয়স্কভাতা দেওয়া হবে

১১ লাখ বয়স্ককে নতুনভাবে বয়স্কভাতা দেওয়া হবে

বয়স্ক ভাতার ৫০০ টাকা : নমুনা টাকা

দৈনিক বিদ্যালয়ের বয়স্ক ভাতা বিষয়ক খবর : আগামী অর্থ বাজেটে আরো ১১ লাখ বয়স্ক উপকারভোগীকে ভাতার আওতায় নিয়ে আসার উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। এ জন্য দেশের আরো ১০০ উপজেলাকে অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে। এনিয়ে নতুন ১১ লাখসহ মোট উপকারভোগীর সংখ্যা হবে ৬৮ লাখ। যার ফলে নতুনকরে সরকারের আর্থিক ব্যয় বাড়বে ৫০০ কোটি টাকা।

এবিষয়ে জানা গেছে, নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়লেও আগামী অর্থবছরে দেশের অসহায় অবহেলিত বয়স্ক ও বিধবাদের ভাতার পরিমাণ বাড়ানোর বিষয়ে সরকার এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি।

১০ এপ্রিল, রবিবার সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি সংক্রান্ত মন্ত্রিসভার কমিটির ২৮তম বৈঠকে বয়স্ক ভাতার আওতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। যে বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম. মুস্তফা কামাল।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক উর্ধতন বলেন, দেশের সব উপজেলায় বয়স্ক ভাতা দিতে চায় সরকার। সেকারণেই আগামী অর্থ-বাজেটে এর আওতা বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

এছাড়া অর্থ মন্ত্রণালয় বলছে, অর্থ মন্ত্রণালয়ের বৈঠকে সামাজিক নিরাপত্তা খাতের বয়স্ক ভাতার আওতা, উপকারভোগীর সংখ্যা এবং ভাতার পরিমাণ বাড়ানোর ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে। তবে আগামী অর্থবছরে বয়স্ক ভাতার পরিমাণ না বাড়িয়ে শুধু এর আওতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

উল্লেখ্য, দেশে ১৯৯৭-৯৮ অর্থবছরে প্রথমবারের মতো মাসে ১০০ টাকা হারে বয়স্ক ভাতা চালু করে সরকার। বয়স্ক জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, পরিবার ও সমাজে তাদের মর্যাদা বাড়ানো, আর্থিক অনুদানের মাধ্যমে মনোবল জোরদার এবং তাদের চিকিৎসা ও পুষ্টি সরবরাহ বাড়াতে এই ভাতা চালু করা হয়।

এছাড়া এর পরের অর্থবছর থেকে বিধবা ভাতা চালু করা হয় এবং প্রাথমিকভাবে দেশের সব ইউনিয়ন পরিষদের প্রতিটি ওয়ার্ডে পাঁচজন পুরুষ ও পাঁচজন নারীকে প্রতি মাসে ১০০ টাকা হারে ভাতার আওতায় আনা হয়। তারপর দেশের সব পৌরসভা ও সিটি করপোরেশনকে এই কর্মসূচির আওতায় আনা হয়।

এখান থেকে তিন বছর আগে ভাতার পরিমাণ বৃদ্ধি করা হয়। যারফলে গত তিন অর্থবছর ধরে উপকারভোগীরা মাসে ৫০০ টাকা হারে ভাতা পাচ্ছেন। এরই মধ্যে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে বয়স্ক ও বিধবা ভাতা ৬০০ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছিল। আগামী অর্থবছরে এই ভাতার পরিমাণ না বাড়লে চার অর্থবছর ধরে একই হারে টাকা পাবেন দেশের বয়স্ক ও বিধবারা।

আরও উল্লেখ্য, চলতি অর্থবছরে ৫৭ লাখ উপকারভোগী বয়স্ক ভাতা পাচ্ছেন এবং আগামী অর্থবছরে এই সংখ্যা আরো ১১ লাখ বৃদ্ধি করা হচ্ছে। যার ফলে মোট উপকারভোগীর সংখ্যা হবে মোট ৬৮ লাখ। বয়স্ক ভাতার উপকারভোগী বাড়ার কারণে আগামী বাজেটে এ খাতে বরাদ্দ বাড়বে ৫০০ কোটি টাকা এবং চলতি অর্থবছরে বাজেটে বয়স্ক ভাতার জন্য বরাদ্দ রয়েছে তিন হাজার ৪৪৪ কোটি টাকা। ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে এটির পরিমান বেড়ে দাঁড়াবে তিন হাজার ৯৪৪ কোটি টাকা।

এছাড়া ২০২০-২১ অর্থবছরে দেশের ১১২টি উপজেলায় বয়স্ক ভাতা দেওয়া হয়। ২০২১-২২ অর্থবছরে দরিদ্রপ্রবণ আরো ১৫০ উপজেলার বয়স্ক, বিধবা ও স্বামী নিগৃহীত নারীকে বয়স্কভাতার আওতায় আনা হয়। এবং ২০২২-২৩ অর্থবছরে এই ১৫০ উপজেলার সঙ্গে আরো ১০০ উপজেলা যুক্ত হচ্ছে। যার ফলে দেশের ৩৬২ উপজেলার বয়স্ক, বিধবা ও স্বামী নিগৃহীত নারীরা সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় আসছে।

-দৈনিক বিদ্যালয়, আর, আর।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

ফেসবুকে লাইক দিন