বিমানের ফ্লাইটে দেওয়া খাবারে তে’লাপো’কা!

আরব আমিরাত

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যাংকক-ঢাকা ফ্লাইটে (বিজি-৩৮৯) যাত্রীকে পরিবেশন করা খাবারে সিদ্ধ করা তেলাপোকা মিলেছে! গত মঙ্গলবার বিকেলে ব্যাংকক থেকে ঢাকায় আসার পথে এ ঘটনা ঘটে।

২৬-সি নম্বর আসনে থাকা যাত্রী খাওয়ার সময় প্যাকেটে তেলাপোকা পেলে এ নিয়ে বিমানের মধ্যেই তোলপাড় শুরু হয়। ওই যাত্রী অসুস্থ বোধ করায় অন্য যাত্রীরা খাবার খাওয়া বন্ধ করে দেন।

বিমান সূত্র জানায়, ব্যাংকক থেকে স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ঢাকার উদ্দেশে বিজি-৩৮৯ ফ্লাইটটি ছেড়ে আসে। বিমান উড্ডয়নের পর যাত্রীদের পোলাও-মাংসের ফয়েল প্যাকেট সরবরাহ করা হয়।

২৬-সি নম্বর আসনে থাকা যাত্রী খাওয়ার একপর্যায়ে তার খাবারে একটি তেলাপোকা দেখতে পান। বিষয়টি তিনি ক্যাবিন ক্রুদের জানালে তারা সঙ্গে সঙ্গেই দুঃখ প্রকাশ করেন। যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও প্রতিশ্রুতি দেন।

ক্রুদের পরামর্শে ওই যাত্রী ফ্লাইটেই লিখিত অভিযোগ করেন। তাতে বলেছেন, খাবারে সিদ্ধ ও মৃত অবস্থায় তেলাপোকা পাওয়ার পর তিনি আর খাবার খেতে পারেননি, তার বমি আসে। পাশের আসনের যাত্রীও ঘটনাটি দেখেছেন। বিষয়টিকে খাবার সরবরাহ করা কর্তৃপক্ষের মারাত্মক অবহেলা হিসেবে উল্লেখ করে তিনি ঘটনার তদন্তও দাবি করেন।

তা ছাড়া বিমানে সরবরাহ করা খাবারে যে তেলাপোকা পাওয়া গেছে—সেই প্রমাণ মেলে ‘জার্নি লগ’-এর নোটেও। ফ্লাইটে গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাগুলো লিখে রাখার জন্য উড়োজাহাজে এই ‘জার্নি লগ’ থাকে। জার্নি লগে ওই ফ্লাইটের পার্সার লেখেন, ‘যাত্রীর ফয়েলে (ফয়েলে মোড়ানো খাবার প্যাকেট) একটি ছোট আকারের তেলাপোকা পাওয়া যায়। এতে ওই যাত্রী খুবই হতাশ ছিলেন।’

খাবারে তেলাপোকা পাওয়ার বিষয়ে জানতে গতকাল বুধবার বিমান ফ্লাইট ক্যাটারিং সেন্টারের মহাব্যবস্থাপক ইকবাল আহমেদ আলী জাকে ফোন দেওয়া হয়; কিন্তু তার সরকারি মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

তবে প্রতিষ্ঠানটির উপব্যবস্থাপক (ফুড সেফটি অ্যান্ড হাইজিন) রফিকুল ইসলাম বলেন, তাদের প্রতিষ্ঠানে সর্বোচ্চ মান বজায় রেখে খাবার তৈরি ও সরবরাহ করা হয়; কিন্তু খাবারে তেলাপোকা থাকার বিষয়ে কোনো অভিযোগ বা তথ্য পাননি। তিনি বলেন, এমন ঘটনা ঘটলে তা জানতাম।

READ MORE  যেভাবে সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসীরা জাতীয় পরিচয়পত্র পাচ্ছেন

জার্নি লগে থাকা তথ্যের উল্লেখ করলে এই কর্মকর্তা বলেন, এরকম ঘটনা সহজে ঘটে না। যে কোনো ধরনের অ্যাক্সিডেন্ট তো ঘটতেই পারে; কিন্তু এ ধরনের তথ্য আমরা পাইনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *