কত শতাংশ প্রাথমিক শিক্ষক টিকার আওতায় : যারা নেননি তাদের সমস্যা

প্রাথমিক

ডিবি ডেস্ক : গত বছরের ১৭ই মার্চ থেকে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় শিক্ষক-কর্মচারীদের টিকার আওতায় এনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখন খুলে দিতে চাচ্ছে সরকার।

স্কুল খোলার জন্য এবার প্রাথমিকের শিক্ষক-কর্মচারীদের টিকা কার্যক্রমের উপর জোর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে ইতোমধ্যে সারাদেশে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তিন লাখ তিন হাজার ৩১৯ জন শিক্ষক-কর্মচারী টিকা নিয়েছেন। যা শতকরা হিসেবে ৮৩ দশমিক ৭২ শতাংশ।
 
অধিদফতরের সূত্রে আরও জানা গেছে, টিকার বাইরে আছেন এখনও ৬২ হাজার ৫৬৪ জনের মত শিক্ষক। যার মধ্যে অধিকাংশ শিক্ষকই নারী। যাদের অধিকাংশ আবার অন্তঃসত্ত্বা, বুকের দুধ পান করানো, জটিল রোগে আক্রান্ত ও টিকা নিবন্ধন করেও টিকার জন্য অপেক্ষমাণ।

এবিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (dpe) মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম বলেন, সব শিক্ষকের টিকা নিশ্চিত করা হবে বিদ্যালয় খোলার আগেই। এজন্য সকল শিক্ষক-কর্মচারীকে বাধ্যতামূলক টিকা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, “প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় সবারই টিকা নেওয়া শেষ। যারা নিতে পারেননি, তাদের নানা ধরনের সমস্যা রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৮ জুলাই তারিখে এক আদ্রশে প্রাথমিক শিক্ষা সংশ্লিষ্ট সবাইকে ১১ আগস্টের মধ্যে করোনার টিকা নেওয়ার নির্দেশ দেয় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। সেই আদেশ নামায় বিভাগীয় উপরিচালক, জেলা শিক্ষা অফিসার, উপজেলা ও থানা শিক্ষা অফিসার, সব পিটিআইয়ের সুপারিনটেনডেন্ট, উপজেলা ও থানা রিসোর্স সেন্টারকে তথ্য পাঠাতে নির্দেশ দেওয়া হয়।

এছাড়া প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর জানায়, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর সারাদেশের প্রাথমিক স্কুলে কর্মরত মোট এক হাজার ৮৫৭ শিক্ষক-কর্মচারী করোনায় আক্রান্ত হয়। যার মধ্যে ০১ হাজার ৩৮৩ জন সুস্থ হলেও ৫৩ জন সদস্যের মৃত্যু হয় এই মহামারিতে।

ডিবি আর আর।

READ MORE  সহকারী শিক্ষকদের ১৩ তম গ্রেডের আইবাস++ এ ফিক্সেশনের অগ্রগতি কতদূর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *