৪০% মহার্ঘভাতা ও দ্রুত পে-স্কেল গঠনের দাবিতে লিখিত আবেদন

বেতন

দৈনিক বিদ্যালয় ডেস্ক : সারা দেশে সরকারি অফিসে কর্মরত তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারীদের জন্য ৪০% মহার্ঘভাতাসহ দ্রুত জাতীয় বেতন কমিশন গঠনের দাবি জানিয়েছেন ৩য় শ্রেণির কর্মচারীরা। ১৭ নভেম্বর এ বিষয়ে বাংলাদেশ তৃতীয় শ্রেণির সরকারি কর্মচারী সমিতির পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী সহ অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিবের কাছে লিখিত এক আবেদন দেয়া হয়।

প্রসঙ্গ : ০৯.০৩.১৪ থেকে শিক্ষকদের টাইমস্কেল জটিলতা নিরসন

এর আগে তৃতীয় শ্রেণির সরকারি কর্মচারী সমিতির ২১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষে ১৫ নভেম্বর রাজধানী ঢাকার খামারবাড়ীতে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সমিতির সদস্যরা এ বিষয়ে তাদের দাবি উত্থাপন করেন।

দাবিতে তারা বলেন, বর্তমান পে-স্কেল ৫ বছর আগে দেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে সবকিছুর দাম বেড়েছে। এখন সবকিছুতে ব্যয় বেড়েছে বহুগুণ কিন্তু বেতনভাতা বাড়েনি। সেজন্য উচ্চপদে সরকারি চাকুরীজীবীদের সমস্যা না হলেও সাধারণ কর্মচারীদের সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। স্বল্প বেতনভোগী অনেকে পরিবারের খরচ সামলানো দিশেহারা।

করোনায় আবার যুক্তরাষ্ট্রে বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

এ অবস্থায় তারা ৪০% মহার্ঘ ভাতা সহ দ্রুত পে-স্কেল ঘোষণার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সদয় হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এ প্রসঙ্গে সংগঠনটির যুগ্ম মহাসচিব এবং বাংলাদেশ মেডিকেল টেকনোলজিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক মহাসচিব সেলিম মোল্লা বলেন, দাবিটি নিয়ে নতুন কিছু বলার নেই। আমরা মনে করছি, সরকারে যদি বাস্তবতার নিরিখে আমাদের দাবির বিষয়টি বিবেচনা করেন, তাহলে আমরা কৃতজ্ঞ হব। এক কথায়, বিষয়টি আলোচনার টেবিলে গেলেই আমরা খুশি। কারণ হিসাবে উল্লেখ করেন, এটি নিয়ে আলোচনা হলেই আমাদের বিশ্বাস, দাবি বাস্তবায়নে অগ্রগতি হবে এবং সিদ্ধান্ত আসবে।’

উক্ত লিখিত আবেদনে মহার্ঘভাতার পাশাপাশি ৩ হাজার টাকা ও চিকিৎসা ভাতা বাবাদ দাবি করা হয়েছে।

প্রাথমিক শিক্ষকদের টাইমস্কেল প্রাপ্তিতে বাঁধা সমুহ

অন্যদিকে সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মো. মাহফুজুর রহমান। বক্তব্য প্রদান করেন মহাসচিব মো. লুৎফর রহমান, কার্যকরী সভাপতি আবদুল কাদের, ছালজার হোসেন, সহসভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান সহ আরো অনেকে।

READ MORE  প্রধান শিক্ষকদের টাইমস্কেল সংক্রান্ত দুটি মামলা ও দশম গ্রেড নিয়ে কিছু কথা

-ডিবি আর আর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *