জাতীয় পরিচয় পত্র ও নিবন্ধন এখন থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে

চাকুরীর বিধান

ডিবি ডেস্ক :: এখন থেকে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন কার্যক্রম আর নির্বাচন কমিশনের আওতায় নেই।

এটির দায়িত্ব এখন থেকে নির্বাচন কমিশনের পরিবর্তে সুরক্ষা সেবা বিভাগ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের
অধীনে ন্যাস্ত করা হয়েছে।

এই জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন দেশে জন্ম নিবন্ধন কার্যক্রম হিসাবে পরিচিত। এই নিবন্ধন কার্যক্রম নির্বাচন কমিশনের অধিন থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে সুরক্ষা সেবা বিভাগে আওতাধীন যাওয়ার পিছনের কারণ হল; দেশের বাহিরের রাষ্ট্র সমুহে এই জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন বা জন্ম নিবন্ধন কার্যক্রম সমুহ সে সকল দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে পরিচালিত হয়ে থাকে।

অতএব এখন থেকে জাতীয় জন্ম নিবন্ধন সম্পর্কিত যে সকল কার্যক্রম সমুহ পরিচালিত হবে তাতে নিয়ন্ত্রণ থাকবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের।

এবিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, পুরাতন সংসদ ভবন, ঢাকা থেকে এক পত্রাদেশ জারি করা হয়েছে ১৭ মে ২০২১ তারিখে।

সেই পরিপত্রে প্রস্তাব সমুহে বলা হয়েছে :

[ক। জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন কার্যক্রম নির্বাহী বিভাগের দায়িত্বের অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় বিভিন্ন দেশের উদাহরণের আলােকে স্ব মন্ত্রণালয়ের অধীন সুরক্ষা সেবা বিভাগ উক্ত দায়িত্ব পালনে উপযুক্ত কর্তপক্ষ বিবেচিত বিধায় জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন সংক্রান্ত দায়িত্ব সুরক্ষা সেবা বিভাগে নাস্ত করার লক্ষে Allocation of Business among different Ministries and Divisions -এ সুরক্ষা সেবা বিভাগের দায়িত্বসমূহের মধ্যে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম সুষ্ঠুক্ত করা যেতে পারে;

খ। জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন আইন, ২০১০ এ নির্বাচন কমিশন’ এর পরিবর্তে “সরকার” শব্দ অন্তর্ভুক্তকরণ সহ প্রয়ােজনীয় সংশােধনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা যেতে পারে;

গ। সুরক্ষা সেবা বিভাগ কর্তৃক জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিদ্যমান অবকাঠামাে ও জনবল নির্বাচন কমিশন হতে সুরক্ষা সেবা বিভাগে হস্তান্তরের ব্যবস্থা গ্রহণ করা যেতে পারে।]

উল্লেখ্য, এই জাতীয় পরিচয় পত্র নিবন্ধন কার্যক্রম স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে যাওয়ায় বড় ধরনের জন্ম নিবন্ধন সম্পর্কিত কোন ঝামেলায় এর সুরাহা করবে দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এবং এর সকল অবকাঠামো ও জনবল যারা আছেন, তারা এখন থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় পরিচালিত হবে।

READ MORE  জিপিএফ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য : ইএফটিতে জিপিএফ চেক করার নিয়ম

এছাড়া শিশুর জন্ম নিবন্ধন ও ১৮ ঊর্ধ্ব নাগরিকদের জাতীয় পরিচয়পত্র সংক্রান্ত সকল ক্ষমতা এখন থেকে আর নির্বাচন কমিশনের থাকবে না। এখন থেকে এটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের।

-ডিবি আর আর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *